বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৪৪,৬০৮
সুস্থ
৯,৩৭৫
মৃত্যু
৬১০

বিশ্বে

আক্রান্ত
৬,০৪৭,৪১৭
সুস্থ
২,৬৭১,৮২৭
মৃত্যু
৩৬৭,১৪৯

ইতালি, ফ্রান্স ও স্পেনে সহ করোনা মহামারির দ্রুত অবনতি হচ্ছে যে সাত দেশে।

করোনা ভাইরাস এ এর মধ্যে বিশ্বে প্রায় আড়াই লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। তবে যে দেশগুলোতে মহামারী রুপ ধারন করেছিলো করোনা ভাইরাস এখন ঐ সকল দেশ গুলোতে মৃত্যু হার কমছে। তবে নতুন করে কিছু জনবহুল দেশের মধ্যে
মৃত্যু এবং আক্রান্ত এর পরিমান বাড়ছে। করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে ইতালি, ফ্রান্স ও স্পেনে মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। চলতি সপ্তাহের মধ্যে সর্বনিম্ন দৈনিক মৃত্যুহার রেকর্ড করেছে এসব দেশ। এ পরিস্থিতিতে দেশগুলো ধীরে ধীরে নিজেদের অর্থনৈতিক কার্যক্রম পুনরায় শুরু করেছে। ফ্রান্স, ইতালি ও স্পেনে ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা কমলেও রাশিয়ায় ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বেড়েছে। রাশিয়ায় ১০ হাজার নতুন সংক্রমণ হয়েছে। অন্যান্য দেশের তুলনায় রাশিয়ায় মৃত্যুর হার কম। গতকাল রোববার ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট মারা গেছে ১ হাজার ২৮০ জন। করোনাভাইরাসের মহামারির সার্বক্ষণিক তথ্য প্রকাশ করছে ওয়ার্ল্ডোমিটারস ডট ইনফো। এই ওয়েবসাইটের তথ্যমতে, গতকাল রোববার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ছিল ৩৫ লাখ ৪০ হাজারের মতো। মৃত্যু আড়াই লাখ ছুঁই–ছুঁই। সুস্থ হয়ে উঠেছেন প্রায় সাড়ে ১১ লাখ। চীনের পর মহামারি বেশি ভয়ানক আকার ধারণ করেছিল ইউরোপের দেশ ইতালি, স্পেন, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, বেলজিয়াম ও নেদার‌ল্যান্ডস; উত্তর আমেরিকার দেশ যুক্তরাষ্ট্র এবং এশিয়ার ইরানে। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে এখন প্রতিদিন গড়ে দেড় থেকে দুই হাজার এবং যুক্তরাজ্যে পাঁচ থেকে সাত শ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। অন্য সব দেশে মৃত্যু তুলনামূলক বেশ কমে এসেছে। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যও একটু ধীরে হলেও কমতির ধারায় আছে। কিন্তু দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে পরিস্থিতি ক্রমেই ভয়াবহ হয়ে উঠছে। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দেশটিতে এক লাখ ছুঁই–ছুঁই। প্রতিদিন রোগী শনাক্ত হচ্ছে পাঁচ–ছয় হাজার করে। গত পাঁচ দিনে দুই দিন দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা পাঁচ শ ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে গত বৃহস্পতিবার ৫২০ এবং রোববার ৫০৯ জনের মৃত্যু হয়। অন্য তিন দিনের মধ্যে শুক্রবার মারা যায় ৪৪৮, শনিবার ৩৯০ এবং সোমবার ৩৪০ জন। সব মিলিয়ে মৃত্যুর সংখ্যায় বিশ্বে দেশটি এখন ৮ নম্বরে। গতকাল পর্যন্ত মারা গেছে ৬ হাজার ৭০০–এরও বেশি মানুষ।